ঝরঝরি ট্রেইল (পন্থিছিলা, সীতাকুন্ড)

সীতাকুন্ড মীরসরাই রেঞ্জের যে কয়েকটা এডভেঞ্চারাস ও সুন্দর ট্রেইল রয়েছে তারমধ্যে ঝরঝরি ট্রেইল অন্যতম। সবুজ পাহাড়ে ঘেরা শান্ত শীতল ঝিরিপথ ধরে প্রায় দেড় থেকে দুই ঘন্টার পথ পাড়ি দিয়ে যখন ঝর্ণার কাছে পৌছাবেন বিশ্বাস করুন আপনার সকল ক্লান্তি তখন গ্যাস বেলুনের মত উড়ে যাবে। ঝরঝরি ঝর্ণার পাশ দিয়ে পাহাড় বেয়ে উপড়ে উঠে গেলে বেশ কয়েকটি ক্যাসকেড ও ঝর্ণা আপনাকে আরো মুগ্ধ করবে বিশেষ করে স্বর্গের সিড়ি না অসম্ভব সুন্দর একটি ক্যাসকেড আছে যা সিড়ির মত ধাপে ধাপে খাজকাটা। এই ট্রেইলের শেষে রয়েছে মুর্তি ঝর্ণা। ঝরঝরি ঝর্ণা পর্যন্ত ট্রেইলটি খুব একটা কঠিন নয়, অনেক মহিলা এবং শিশু ট্রাভেলার কেউ যেতে দেখেছি সেখানে। বর্ষা মৌসুম ঝর্ণায় যাবার বেস্ট সময় আর এই সময় ঝর্ণায় পানির ফ্লো বেশ ভালো।

যাওয়ার উপায়ঃ দেশের যেকোন প্রান্ত থেকে সীতাকুন্ডের পন্থিছিলা বাজারে নামতে হবে। সেখান থেকে পূর্বদিকের রাস্তা ধরে হাটা শুরু করতে হবে। এখানেই কিছু দোকান পাবেন প্রয়োজনীয় শুকনো খাবার আর যথেষ্ট পরিমান পানি নিয়ে নিবেন এখান থেকেই কারন সামনে আর কোন দোকান পাবেন না। এখান থেকেই গাইড নিয়ে নিতে পারেন নইলে আরেকটু এগিয়ে রেললাইনের সেখান থেকেও গাইড নিতে পারেন ৩০০টাকা তেই গাইড পেয়ে যাবেন।

খাবার ব্যবস্থাঃ এই এড়িয়ায় তেমন ভালো খাবার দোকান নেই। চাইলে গাইডের সাথে কথা বলে তার ঘরেই দুপুরের খাবার ব্যবস্থা করতে পারেন কি কি খাবেন বলে দিবেন আর সেই অনুযায়ী বাজারের টাকা দিয়ে দিবেন আমরাও তাই করেছিলাম মুরগি, আলুভর্তা, কচুশাক, ডাল দিয়ে ভাত খেয়েছিলাম রান্না আর বাজার খরচ বাবদ ৮জনের জন্য ৮০০/- দিয়েছিলাম। ঘরের রান্না অন্তত হোটেলের চেয়ে ভালো আর ওদের আতিথেয়তায় আপনি মুগ্ধ হবেনই।

সতর্কতাঃ অবশ্যই ভালো ট্রেকিং স্যান্ডেল/জুতা পড়ে যাবেন ট্রেইলটা কয়েক জায়গায় বেশ পিচ্ছিল বিশেষ করে ঝরঝরি ঝর্ণার উপরে যতই যাবেন পিচ্ছিল রাস্তা। যেহেতু লম্বা ঝিরিপথ পাড়ি দিবেন তাই হাতে একটা বাশ নিয়ে নিবেন যা আপনাকে ব্যালেন্স করতে সাহায্য করবে। পথে জোক পেতে পারেন সাথে লবন রাখতে পারেন আর বাড়তি সতর্কতার জন্য পায়ে মোজা পড়ে নিতে পারেন। গাইডের পরামর্শ ছাড়া বেশি এডভেঞ্চার করতে গিয়ে নিজের বিপদ ডেকে আনবেন না।

অনুরোধঃ ঝর্ণার আশেপাশে প্রচুর বিরিয়ানী, জুস আর পানির খালি বোতল দেখেছি আপনারা নিশ্চয়ই নিজের ঘরটা এমন দেখতে চাননা তবে এত সুন্দর ঝর্ণার এই হাল কেন করবেন? ঘুরতে গিয়ে আপনার বহন করে নিয়ে যাওয়া কোন অপচনশীল দ্রব্য ফেলে আসবেন না। মনে রাখবেন আপনি ঘুরতে যাচ্ছেন নোংরা করতে নয়।

ভ্রমন হোক নিরাপদ ও পরিচ্ছন।

Leave A Comment